সংবাদ শিরোনাম :
দেশজুড়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা : রিজভী অল্প রানে গুটিয়ে গেল নেদারল্যান্ডস রংপুরে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাতিল হতে পারে বিশ্বকাপের পাক-ভারত ম্যাচ! সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর সতর্কতা সংকেত ডিএমপি কমিশনার-র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি এবার রংপুরে হিন্দুপাড়ায় আগুন, আটক ২০ আমেরিকা ও কানাডাকে উসকানির ব্যাপারে সতর্ক করল চীন যুদ্ধ শুরু হলে হিজবুল্লাহ প্রতিদিন ২৫০০ রকেট ছুঁড়তে পারবে’ বিশ্বকাপ জিতেই অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি চবির ১২ ছাত্রলীগ কর্মীকে বহিষ্কার বিএনপি-জামায়াত ও তাদের দোসররা কুমিল্লার ঘটনা ঘটিয়েছে : তথ্যমন্ত্রী
মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ড : আরও তিন রোহিঙ্গা রিমান্ডে

মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ড : আরও তিন রোহিঙ্গা রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক :  

রোহিঙ্গা শীর্ষ নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার ৩ রোহিঙ্গাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত।

কক্সবাজারের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম তামান্না ফারাহ পুলিশের রিমান্ড আবেদনের শুনানি করে বুধবার সাড়ে ১১টায় এই আদেশ দেন বলে আদালত পুলিশের পরিদর্শক চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান।

তারা হলেন- উখিয়ার কুতুপালং লম্বাশিয়া-১ ইস্ট রোহিঙ্গা ক্যাম্প ১৫ ব্লকের বাসিন্দা জাকির আহমদের ছেলে জিয়াউর রহমান (২৫), লম্বাশিয়া ৮ ডাব্লিউ ক্যাম্পের এইচ ৫৪নং ব্লকের মৃত মকবুল আহমদের ছেলে মোহাম্মদ সালাম (৩২) ও ৫নং ক্যাম্পের রজক আলীর ছেলে মো: ইলিয়াছ (২৮)।

এর আগে গ্রেফতার তিন রোহিঙ্গাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই কার্তিক চন্দ্র। এনিয়ে পৃথকভাবে একই মামলার মোট ৫ জনকে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করলো আদালত।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন এপিবিএন সদস্যরা এই তিনজন রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করে উখিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। পরে পুলিশ তাদের আদালতে সোপর্দ করলে গ্রেফতারকৃতদের জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

ইতিপূর্বে মোহাম্মদ সেলিম প্রকাশ লম্বা সেলিম এবং শওকত উল্লাহ নামে দুই রোহিঙ্গাকে একই মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনদিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। মুহিব্বুল্লাহ হত্যা মামলায় এ পর্যন্ত এপিবিএন সদস্যরা ৫ জন এবং উখিয়া থানা পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।

১৪ এপিবিএন’র অধিনায়ক পুলিশ সুপার নাঈমুল হক জানান, মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা করছেন তারা। পুরো ক্যাম্পকে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে আনা হচ্ছে। প্রতিরাতেই পুলিশ এবং এপিবিএন টিম ক্যাম্পে ব্লক রেইড দিচ্ছে। সাধারণ রোহিঙ্গারা যাতে ভয়ভীতিতে না পড়েন সেদিকটাও দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা নিজ অফিসে মুহিবুল্লাহকে লক্ষ্য করে ৫ রাউন্ড গুলি চালায়। এসময় ৩ রাউন্ড গুলি তার বুকে লাগে। খবর পেয়ে এপিবিএন সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে ‘এমএসএফ’ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 মুক্তি.. / জয়নুল / রেজা

Print Friendly, PDF & Email

আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2015-2021 Muktiralo24.Com
Design & Developed BY SD REPON KHAN