সংবাদ শিরোনাম :
দেশজুড়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা : রিজভী অল্প রানে গুটিয়ে গেল নেদারল্যান্ডস রংপুরে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাতিল হতে পারে বিশ্বকাপের পাক-ভারত ম্যাচ! সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর সতর্কতা সংকেত ডিএমপি কমিশনার-র‍্যাব ডিজি’র পদোন্নতি এবার রংপুরে হিন্দুপাড়ায় আগুন, আটক ২০ আমেরিকা ও কানাডাকে উসকানির ব্যাপারে সতর্ক করল চীন যুদ্ধ শুরু হলে হিজবুল্লাহ প্রতিদিন ২৫০০ রকেট ছুঁড়তে পারবে’ বিশ্বকাপ জিতেই অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি চবির ১২ ছাত্রলীগ কর্মীকে বহিষ্কার বিএনপি-জামায়াত ও তাদের দোসররা কুমিল্লার ঘটনা ঘটিয়েছে : তথ্যমন্ত্রী
শুক্রবার খুলছে বঙ্গবন্ধু টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেল

শুক্রবার খুলছে বঙ্গবন্ধু টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেল

নিজস্ব প্রতিবেদক :  

আগামী শুক্রবারই খুলে দেওয়া হচ্ছে চট্টগ্রামে বহুল আকাঙ্ক্ষিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেল। ফলে কর্ণফুলীর তলদেশ দিয়ে যান চলাচলে আর কোনো বাধা থাকছে না।

এমনকি নির্ধারিত সময়ের বহু আগেই প্রকল্পের উদ্বোধন হবে বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) একনেক সভা পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান মন্ত্রী।

সভায় কিছু প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতির জন্য বিরক্ত প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, অবসরে গেলেও প্রকল্প বাস্তবায়নে গাফিলতির শাস্তি থেকে রেহাই পাবেন না কোনো কর্মকর্তা।

মন্ত্রী বলেন, অন্যতম মেগা ও স্বপ্নের প্রকল্প বঙ্গবন্ধু টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেলের মুখ শুক্রবার রাতে খুলে দেওয়া হবে। একটা চ্যানেলের মুখ আগেই খুলে দেওয়া হয়েছিল। শুক্রবার মধ্যরাতে দুটোর নির্মাণ কাজই শেষ হবে।

তিনি আরও বলেন, আগামী বছরের ২২ ডিসেম্বর এটা চালু করার কথা ছিল। কিন্তু এখন যা মনে হচ্ছে ঘষামাজা করে তারও আগেই এটা চালু করতে পারবো। এটা সবার জন্য আনন্দের ব্যাপার।

পানির বুক ভেদ করে সুড়ঙ্গ পথ বা টানেল। দেশে প্রথম ২০১৯ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি নির্মাণ শুরু হয় চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থেকে কর্ণফুলী নদীর পানির স্তরের ৪৫ মিটার গভীর দিয়ে আনোয়ারায় সংযুক্ত হবে বঙ্গবন্ধু টানেল। চীনের অর্থায়নে ৩ দশমিক ৪৩ কিলোমিটার লম্বা এ টানেল নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ৭০৫ মিলিয়ন ডলার। জমি অধিগ্রহণ এবং প্রশাসনিক ব্যয় বহন করছে বাংলাদেশ সরকার।

টানেলের নির্মাণকাজ শেষ হলে ৪ লেন দিয়ে ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার গতিতে গাড়ি চলাচল করতে পারবে। সহজ হবে শিল্প নগরী চট্টগ্রামসহ কক্সবাজার, সেন্টমার্টিন, বান্দরবানের যোগাযোগ ব্যবস্থা। এছাড়া, মিয়ানমার হয়ে প্রস্তাবিত এশিয়ান হাইওয়ের সঙ্গে যুক্ত হওয়াসহ ৭টি লক্ষ্য নিয়ে চলছে নির্মাণকাজ।

মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ-একনেক সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেলের মুখ খুলে দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। পরে, একনেক সভা পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, শুক্রবারই খুলে দেওয়া হবে টানেলের দ্বিতীয় চ্যানেল।

২০২২ সালের মধ্যে ১০ হাজার ৩শ ৭৪ কোটি টাকা ব্যয়ের কর্ণফুলী টানেল নির্মাণকাজ সমাপ্তের পরিকল্পনা রয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী। শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এ বৈঠকে সভাপতিত্বে করেন তিনি।

মুক্তি.. / জয়নুল / রেজা

 

Print Friendly, PDF & Email

আপনার সোশ্যাল মিডিয়াতে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2015-2021 Muktiralo24.Com
Design & Developed BY SD REPON KHAN