News Headline :
পল্লী সমাজের উদ্যোগে ফ্রি সাবান বিতরণ উরুগুয়েকে হারিয়ে শীর্ষে আর্জেন্টিনা সাতক্ষীরা সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়নের দেবনগর পল্লী সমাজে ঘরের কাজে নারী ও পুরুষ উভয়েরই অংশগ্রহণ বিষন্নতা,, এক সমু্দ্র কষ্ট,, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়নের তালতলা পল্লী সমাজের সদস্যরা বিশ্ব্যব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ফ্রি মাস্ক বিতরণ পল্লী সমাজের উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ পল্লী সমাজের উদ্যোগে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে লালকার্ড প্রদর্শন পল্লী সমাজের উদ্যোগে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে হাত ধোয়া ক্যাম্পেইন। পল্লী সমাজের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী দিবসে মানববন্ধন।
ঢাবিতে নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালন বিষয়ক সেমিনার

ঢাবিতে নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালন বিষয়ক সেমিনার

২৬ অক্টোবর ২০১৯,   ২১:১৪  ঢাকা  প্রতিনিধি

দেশের ৫২টি জেলায় শিক্ষার্থীদের পরিচালিত সবচেয়ে বড় স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সংগঠন বাঁধন এর সাবেক কর্মীদের নিয়ে গঠিত বাঁধন ফাউন্ডেশন কর্তৃক “সেফ ব্লাড ট্রান্সফিউশন ইন বাংলাদেশ এন্ড রোল অব বাঁধন ট্রান্সফিউশন সেন্টার” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের রফিকুল ইসলাম খান অডিটোরিয়ামে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

বাঁধন এর ২২ বছর পূর্তিতে ঢাবির চিকিৎসা কেন্দ্রে “বাঁধন ট্রান্সফিউশন সেন্টার” নামে একটি আধুনিক নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালন কেন্দ্র গড়ে তোলে বাঁধন ফাউন্ডেশন। বাংলাদেশে নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালন ও বাঁধন ট্রান্সমিশন সেন্টারের ভূমিকা নিয়ে শুক্রবার সকালে এক সেমিনারের আয়োজন করে সংগঠনটি।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ট্রান্সফিউশন মেডিসিন বিভাগের সাবেক প্রধান ও বাঁধন ট্রান্সফিউশন সেন্টারের কনসালট্যান্ট প্রফেসর ডা. মুন্সী এম হবীবুল্লাহ।

তিনি রক্তদানের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে বলেন, অতীতে বাংলাদেশে নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালন নিয়ে নানা প্রশ্ন ছিল। বর্তমানে সেই অবস্থার কিছুটা পরিবর্তন হয়েছে। এক্ষেত্রে দেশজুড়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কাজ করায় তরুণদের মধ্যে বেশ সচেতনতা তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে বাঁধন।

নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালনে বাঁধন ট্রান্সফিউশন সেন্টারের ভূমিকা নিয়ে ডা. হাবীবুল্লাহ বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নিয়ম মেনে আন্তর্জাতিক মানের যন্ত্র ব্যবহার করেই সেন্টারটি নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালনে কাজ করবে। এছাড়া রক্তদানের পরিবেশ ও সেবা নিয়ে রক্তদাতাদের মধ্যে আগে যে ভয় বিরাজ করত বাঁধন ট্রান্সফিউশন সেন্টার তা দূর করে সেবা নিশ্চিত করবে বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারির ন্যাশনাল কো-অর্ডিনেটর ও প্লাস্টিক সার্জন ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, বাঁধন ট্রান্সফিউশন সেন্টার নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালনে যে ব্যয় ধরেছে তা অনন্য এক নজির সৃষ্টি করবে। এ সময় ইন্সটিটিউটে বাঁধন এর জন্য একটি কক্ষ বরাদ্দ দিতে চান বলেও জানান ডা. সেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, রক্ত দেয়া একটি মহৎ কাজ। বাঁধন কর্মীরা শুরু থেকেই এই মানবিক কাজটি করে আসছে। বাঁধন ট্রান্সফিউশন সেন্টার সকলের কল্যাণে দেশের মানুষের জন্য সেবা দিবে বলেও মনে করেন তিনি।

অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক ও বাঁধন কেন্দ্রীয় পরিষদের উপদেষ্টা এস এম কোরবান আলী, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন।

সেমিনারে সমাপনী বক্তব্যে অতিথিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বাঁধন এর উদ্যোগক্তা ও বাঁধন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শাহিদুল ইসলাম রিপন বলেন, বাঁধন ট্রান্সফিউশন সেন্টার গড়ে তোলা বাঁধন কর্মীদের একটি দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল। সকলের সহযোগিতায় আমরা এটি গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছি। নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালনে কাজ করবে সেন্টারটি। পরে সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও আগামী দিনে সবার সহযোগিতা কামনা করেন সংগঠনটির এই স্বপ্নদ্রষ্টা।

উল্লেখ্য, ১৯৯৭ সালের ২৪ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ হলে প্রতিষ্ঠিত বাঁধন এর প্রাক্তন সদস্য, স্পন্দন-বি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহায়তায় আধুনিক রক্ত পরিসঞ্চালন কেন্দ্র তৈরি করে বাঁধন ফাউন্ডেশন।

মুক্তিরআলোটুয়েন্টিফোর.কম  / রেজা                         

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2015-2020 Muktiralo24.Com
Design & Developed BY SD REPON KHAN