News Headline :
পল্লী সমাজের উদ্যোগে ফ্রি সাবান বিতরণ উরুগুয়েকে হারিয়ে শীর্ষে আর্জেন্টিনা সাতক্ষীরা সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়নের দেবনগর পল্লী সমাজে ঘরের কাজে নারী ও পুরুষ উভয়েরই অংশগ্রহণ বিষন্নতা,, এক সমু্দ্র কষ্ট,, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়নের তালতলা পল্লী সমাজের সদস্যরা বিশ্ব্যব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ফ্রি মাস্ক বিতরণ পল্লী সমাজের উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ পল্লী সমাজের উদ্যোগে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে লালকার্ড প্রদর্শন পল্লী সমাজের উদ্যোগে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে হাত ধোয়া ক্যাম্পেইন। পল্লী সমাজের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী দিবসে মানববন্ধন।
খাজার সেঞ্চুরিতে দুবাই টেস্টের নাটকীয় পরিণতি

খাজার সেঞ্চুরিতে দুবাই টেস্টের নাটকীয় পরিণতি

মুক্তিরআলোটুয়েন্টিফোর.কম  ১১ অক্টোবর, ২০১৮

চোখের সামনে জয় দেখতে পাচ্ছিল পাকিস্তান। এজন্য শেষ দিনে অজিদের ৭ উইকেট তুলে নিতে পারলেই কেল্লাফতে। কিন্তু উসমান খাজা তা হতে দিলেন না। ৪৬২ রানের পাহাড়সম জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে এই বাঁ-হাতির দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে শেষদিনে ৮ উইকেটে ৩৬২ রান করে ম্যাচ ড্র করে ফেলল অস্ট্রেলিয়া। ব্যাট হাতে ১৪১ রানের নান্দনিক ইনিংস খেলেন খাজা।

নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ম্যাচের চতুর্থ ৩ উইকেটে ১৩৬ রান তুলে দিন শেষ করে সফরকারীরা। তাই ম্যাচ জিততে শেষ দিন আরও ৩২৬ রান দরকার পড়ে অস্ট্রেলিয়ার। আর পাকিস্তানের প্রয়োজন পড়ে ৭ উইকেট। খাজা ৫০ ও ট্রাভিস হেড ৩৪ রান নিয়ে পঞ্চম ও শেষ দিনের খেলা শুরু করেন।

আগের দিন উইকেটে সেট হয়ে যাওয়া খাজা ও হেড, আজও নিজেদের ব্যাটিং নৈপুণ্য দেখাতে থাকেন। ফলে মধ্যাহ্ন-বিরতি পর্যন্ত অবিচ্ছিন্ন থাকে এ জুটিহ । তবে মধ্যাহ্ন বিরতি থেকে ফিরে আসার পর সপ্তম বলেই বিছিন্ন হয়ে যায় তারা। ৭২ রান করা হেডকে শিকার করে পাকিস্তানকে দারুন এক ব্রেক-থ্রু এনে দেন পাকিস্তানের মোহাম্মদ হাফিজ। চতুর্থ উইকেটে খাজা-হেড ২৯২ বল মোকাবেলা করে ১৩২ রান যোগ করেন।

মিডল-অর্ডারের আরেক ব্যাটসম্যান মার্নুাস লাবুসচাগনে বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে পারেননি। ২৪ বলে ১৩ রান করেন তিনি। এরপর অধিনায়ক টিম পাইনকে নিয়ে আবারো উইকেটে থিতু গাথার চেষ্টা করেন খাজা। এবারও সফল হন তারা। পাকিস্তানের বোলারদের বিপক্ষে রান তোলার চেয়ে বল বেশি খেলাতেই মনোযোগী হয়ে উঠেন খাজা ও পাইন। এর মধ্যে টেস্ট ক্যারিয়ারের সপ্তম সেঞ্চুরি তুলে নেন খাজা।

সেঞ্চুরির পরও ইনিংস বড় করেছেন খাজা। উইকেটে টিকে থাকাই মূল লক্ষ্য ছিল খাজার। সেখানে সফল হয়ে দলীয় ৩৩১ রানে থেমে যান তিনি। ৩০২ বলে ১৪১ রান করেন খাজা। তার ইনিংসে ১১টি চার ছিল। খাজার বিদায়ের পর দ্রুতই ২ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। ফলে ম্যাচ জয়ের স্বপ্ন দেখতে থাকে পাকিস্তান। কারণ তখনও দিনের খেলার ৭৪ বল বাকী ছিল। প্রয়োজন ছিল অস্ট্রেলিয়ার শেষ দুই উইকেটের। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার দশম ব্যাটসম্যান নাথান লিঁওকে নিয়ে দিনের বাকী সময় বিপদ ছাড়াই পার করে দিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে নিশ্চিত হার থেকে রক্ষা করেন পাইন।

নবম উইকেটে ৭৩ বল মোকাবেলা করে অবিচ্ছিন্ন থাকেন পাইন ও লিঁও। দু’জনে জুটিতে যোগ করেন ২৯ রান। পাইন ৫টি চারে ১৯৪ বলে অপরাজিত ৬১ ও লিঁও ৩৪ বলে অপরাজিত ৫ রান করেন। পাকিস্তানের ইয়াসির শাহ ৪টি ও আব্বাস ৩ উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার খাজা।

আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে আবুধাবিতে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

© All rights reserved © 2015-2020 Muktiralo24.Com
Design & Developed BY SD REPON KHAN